www.muktobak.com

কাশ্মিরের গণমাধ্যমের টুঁটিচেপে ধরেছে ভারত : রিপোর্ট


 এএফপি, নয়াদিল্লি    ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, শনিবার, ১১:৫৮    আন্তর্জাতিক


স্পেশাল স্ট্যাটাস বিষয়ক সংবিধানের বিশেষ ধারা ৩৭০ বাতিলের একমাস পরও কড়াকড়ির অংশ হিসেবে কাশ্মিরের গণমাধ্যমের কণ্ঠরোধ করছে ভারত সরকার। দুটি মানবাধিকার গ্রুপের প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে। ৫ আগস্ট কাশ্মিরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল এবং     সেখানে ১০ হাজার বাড়তি সেনা মোতায়েনের পর সেখানকার গণমাধ্যমের অবস্থা পর্যবেক্ষণে এ তথ্য জানিয়েছে তারা।

সপ্তাহের শুরুর দিকে এ সংক্রান্ত রিপোর্ট প্রকাশ করা হয়। যাতে বলা হয়, সরকার ও নিরাপত্তা কর্মীরা রিপোর্টারদের নজরদারিতে রাখছেন, অঘোষিত অনুসন্ধান এবং সংবাদ প্রকাশের ক্ষেত্রে হয়রানি করা হচ্ছে।  ‘News Behind The Barbed Wire’ এই শিরোণামে প্রকাশিত রিপোর্টে কাশ্মিরের গণমাধ্যমের এই ভয়ংকর ও হতাশাজনক চিত্র উম্মোচিত হয়। এতে আরও বলা হয়, বেশিরভাগ গণমাধ্যমের সম্পাদকীয় হিসেবে অহিংস টপিক বেছে নেয়া হয়েছে। যেমন ভিটামিন এ’র উপকারিতা কিংবা গ্রীষ্মকালে ক্যাফেইন খাওয়া।

 কাশ্মিরের গণমাধ্যমের এই পরিস্থিতিকে ওই রিপোর্টে ক্ষতিকর ও সম্পূর্ণ অগণতান্ত্রিক বলে মন্তব্য করা হয়। কাশ্মির উপত্যকায় ৫ দিন কাটিয়ে ৭০জন গণমাধ্যমকর্মী, স্থানীয় প্রশাসন ও নাগরিকদের সাথে কথা বলে এই প্রতিবেদন তৈরি

করেন দুই সাংবাদিক। যা প্রকাশ করে Network of Women in Media, India  এবং Free Speech Collective.  এ ব্যাপারে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের বক্তব্য জানতে চাইলে রিপোর্টটি না দেখে মন্তব্য করতে রাজি হননি সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা।

১৯৮৯ সালের বিচ্ছিন্নতাবাদীদের সশস্ত্র আন্দোলন শুরুর পর থেকেই ভারতের সরকার কাশ্মিরের নাগরিকদের চলাচল, ইন্টারনেট এবং মোবাইল সেবায় বিধিনিষেধ দেয়।

 ভারতের সরকার বলে আসছে বিশেষ মর্যাদা বাতিলের মাধ্যমে কাশ্মিরের উন্নয়নে আরও পদক্ষেপ নেয়া হবে। পাল্টে যাবে কাশ্মিরের অর্থনীতি। ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হয়ে আসবে নাগরিক জীবন যাত্রা। শান্তি ফিরতে উপত্যকায়। বাস্তবতা উল্টো। ৫ আগস্টের পরে এ পর্যন্ত অন্তত ৫শ বিক্ষোভ ও পাথর নিক্ষেপের ঘটনা ঘটেছে। গ্রেপ্তার করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে ৪হাজার কাশ্মিরিকে। ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। যদিও সেনাবাহিনী বলছে তারা পাথর নিক্ষেপকারী ও জঙ্গী।

এরআগে কাশ্মীর ঘিরে দুই পারমাণবিক অস্ত্র সমৃদ্ধ দেশ (ভারত ও পাকিস্তান) দুদফা যুদ্ধে জড়িয়েছে। আর সংঘর্ষ হয়েছে অজস্রবার।  (ভাষান্তর) 

India throttling Kashmir media: report নিউজটি ৭ সেপ্টেম্বর নিউএইজ এ প্রকাশিত। - মুক্তবাক




 আরও খবর